করোনা: বাড়ি ফিরেছেন ১৭৪ জন

0
914

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ২ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৭০ জন। দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৫৭১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত ৮ হাজার ২৩৮ জন।

শুক্রবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাক্তার নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন আরও ১৪ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন ১৭৪ জন।

তিনি বলেন, শনাক্তকৃত ব্যক্তিদের মধ্যে প্রায় ৮শ’ জন সুস্থ আছেন, যাদের মধ্যে লক্ষণ বা উপসর্গ নেই। কিন্তু পরপর দুটি টেস্টের মধ্যে কারও হয়তো একটি টেস্ট হয়েছে, কারো হয়তো হয়নি। আবার কারো হয়তো একটিও টেস্ট হয়নি। সময়ের কারণে করা সম্ভব হয়নি। লক্ষণ ও উপসর্গ সম্পূর্ণ নিরাময়ের পরই আমরা পুনরায় টেস্টগুলো করি। এই ৮শ’ জন আছেন যাদের অনেকে বাসায় আছেন, আবার হাসপাতালে থেকেও চিকিৎসা নিচ্ছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবারের চেয়ে আজ আক্রান্ত ৭ জন বেশি। গতকাল আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫৬৪ জন। গতকালের চেয়ে আজ নমুনা পরীক্ষা বেড়েছে ১২ দশমিক ২৫ শতাংশ। আর নমুনা সংগ্রহ বেড়েছে ৫ দশমিক ৯০ শতাংশ বেশি।

ডাক্তার নাসিমা সুলতানা জানান, করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫ হাজার ৯৫৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ হয়েছিল ৫ হাজার ৬২৬টি। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৩১টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫ হাজার ৫৭৩টি। আগের দিন পরীক্ষা হয়েছিল ৪ হাজার ৯৬৫টি। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭০ হাজার ২৩৯টি।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় যে ২ জন মারা গেছেন তার মধ্যে ১ জন পুরুষ ও ১ জন নারী। মৃতদের মধ্যে একজন ষাটোর্ধ্ব। আরেকজন ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী। মৃতদের ১ জন ঢাকার, আরেকজন ঢাকার বাইরের।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ১৭৫ জনকে। এখন পর্যন্ত মোট আইসোলেশনে আছেন ১ হাজার ৫২২ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৭৩ জন। মোট ছাড় পেয়েছেন ৯৬৪ জন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টাইন মিলিয়ে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ২ হাজার ৩৮১ জনকে। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৮৮ হাজার ৯০০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড় পেয়েছেন ৩ হাজার ৪৬২ জন। এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ১ লাখ ১৮ হাজার ৪৯৯ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৭০ হাজার ৪৪১ জন। যারা কোয়ারেন্টাইন মুক্ত হচ্ছেন তাদের সাথে অপরাধীর মতো আচরণ না করে মানবিক আচরণ করার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান। ডাক্তার নাসিমা সুলতানা জানান, দেশের বিমানবন্দর, স্থল, নৌ ও সমুদ্রবন্দর দিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ৬১৪ জনসহ সর্বমোট বাংলাদেশে আগত ৬ লাখ ৭৭ হাজার ২৫০ জনকে স্কিনিং করা হয়েছে।