নিষিদ্ধ হচ্ছে রাশিয়া?

0
807

রাশিয়াকে চার বছরের জন্য সব ধরনের খেলাধুলা থেকে বিরত রাখার প্রস্তাব করেছে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সির একটি প্যানেল।

রাশিয়ার কর্মকর্তারা অ্যান্টিডোপিং নিয়ন্ত্রকদের কাছে জমা দেয়া একটি ডাটাবেস থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মুছে ফেলেছে বলে তদন্তকারীরা জানতে পেরেছে। এরপরই তদন্ত কমিটি এই প্রস্তাব করে। সূত্র :এএফপি ও নিউইয়র্ক টাইমস।

প্রস্তাবনা অনুমোদিত হলে রাশিয়ান ক্রীড়াবিদ এবং দলগুলি আগামী বছরের টোকিও অলিম্পিক থেকে নয় শুরু করে আন্তর্জাতিক সব ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থেকেও নিষিদ্ধ হবে।

এই প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে রুশ ক্রীড়াবিদরা নিরপেক্ষ ইউনিফর্মের মাধ্যমে অলিম্পিক গেমসে প্রতিযোগিতা করতে পারবে। কিন্তু তাতে দেশের পতাকা বা সংগীত বাজবে না। তবে তারা যে কোনো পদক জিততে এবং তা সংগ্রহ করতে পারবেন।ডোপিং বিধি লঙ্ঘনের জন্য ৪ বছরের শাস্তি এবং একই সঙ্গে ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক্স ও ২০২২ সালে কাতারের ফিফা বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ হারাতে পারে।

রাশিয়ার খেলাধুলার ওপর যদি নিষেধাজ্ঞা আরোপ হয়, তবে তা শুরু হবে ২০২০ সালে ১ জানুয়ারি থেকে।

এর আগে, ২০১৮ সালে পিয়ংচ্যাংয়ে অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিক গেমসেও রাশিয়া খেলতে পারেনি। যদিও নির্দিষ্ট কিছু অ্যাথলেট নিরপেক্ষ পোশাকে ‘রাশিয়া থেকে অলিম্পিক অ্যাথলেট হিসেবে’ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। এই নিষেধাজ্ঞা রাশিয়াকে অবশ্যই ২০২০ সালের টোকিও এবং ২০২২ সালে বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত খেলা থেকে সরিয়ে দেবে।