পুলিশী হয়রানি করা ঠিক হয়নি

0
547
ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ বলেছেন, রাস্তাঘাটে সাধারণ মানুষকে পুলিশী হয়রানি করা ঠিক হয়নি। তিনি বলেন, প্রয়োজনে কেউ রাস্তায় যেতেই পারেন, গেলেই তাকে হয়রানির সম্মুখীন হওয়া অত্যন্ত দুঃখজনক। এটি করার জন্য পুলিশকে বলা হয়নি।

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. সুপ্রভ আহমেদ তার সাথে করা হামলার কথা জানান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে

শুক্রবার তথ্যমন্ত্রী তার বাসভবন থেকে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। হাছান মাহমুদ বলেন, পুলিশ সদর দফতর থেকে মাঠ পর্যায়ের সব কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে, মানুষ প্রয়োজনে অবশ্যই রাস্তায় বের হতে পারে। কিন্তু অপ্রয়োজনে যদি কেউ বের হয় তাহলে তাকে বুঝিয়ে ঘরে ফেরত পাঠানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে। তাই ঘর থেকে বের হলেই হয়রানি করা ঠিক না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে বৈশ্বিক মহাদুর্যোগ করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় দেশবাসীকে ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছিলেন। একই সাথে সরকারের পক্ষ থেকে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। জনগণ প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে কার্যত ঘরেই অবস্থান করছেন।

পাংশা মডেল থানার ওসি আহসান। ছবি: সংগৃহীত

উল্লেখ্য, রাজবাড়ি জেলার পাংশায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সুপ্রভ আহমেদ (৩৯তম বিসিএস) ডিউটি শেষে ভ্যানে চেপে কোয়াটারে ফেরার পথে পুলিশের হয়রানির শিকার হন। এ সময় পাংশা মডেল থানার ওসি মো. আহসান রাস্তায় বের হওয়ার কারণে ডাক্তার সুপ্রভকে অশালীন ভাষায় গালাগাল করে তার দুই পায়ে বেত দিয়ে আঘাত করে। সুপ্রভ আহমেদ নিজের পরিচয় দিয়েও পুলিশের হাত থেকে রেহাই পাননি।

শুধু রাজবাড়িতেই নয়, জরুরী কাজে বের হয়ে খোদ রাজধানীতেও পুলিশী হয়রানির শিকার হয়েছেন অনেকে। পুলিশী বাড়াবাড়ি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার মুখে তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে কথা বলেন।