লাখ ছাড়িয়েছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা

মৃতের সংখ্যা দেড় কোটি হওয়ার শঙ্কা অস্ট্রেলিয়ান গবেষকদের

0
1015

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত মারা গেছে প্রায় সাড়ে তিন হাজার মানুষ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, প্রাণঘাতি এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে ৯০টি দেশে। এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে প্রতিটি দেশ। অস্ট্রেলিয়ান গবেষকরা বলছেন, মৃতের সংখ্যা দেড় কোটি ছুতে পারে। তবে আশার কথা, চীনের পরিস্থিতি উন্নতির দিকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-এর পরিচালক টিডর্স এডানম বলেছেন, আমরা পরিস্থিতির উন্নয়নের আশা ছাড়তে পারি না। এ বিষয়ে অজুহাত দেয়ারও সুযোগ নেই। এমন পরিস্থিতির জন্য বহুদিন ধরেই দেশগুলো প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এখন সময় এসেছে প্রস্তুতি অনুযায়ী কাজ করার। খবর: রয়টার্স ও আরটি’র।

তিনি বলেন, এক সাথে সব দেশ নিজেদের মধ্যে সমন্বয় রেখে চেষ্টা করলে অবশ্যই করোনা ভাইরাসকে মোকাবেলা করা সম্ভব।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৯০টি দেশে মারা গেছেন ৩ হাজার ৪৫৬ জন। এতে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৬৮০ জন।

ডব্লিউএইচও আহ্বান জানিয়েছে, সংক্রমণ ঠেকাতে বিভিন্ন দেশ যে কোয়ারেন্টাইন পদ্ধতি ব্যবহার করছে তাতে যেন কোনভাবেই কোন ব্যক্তির মানবাধিকার লঙ্ঘিত না হয়।

এদিকে, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি ও ইরানে পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করছে। ভ্যাটিকান সিটিতেও এক জনের মধ্যে সনাক্ত হয়েছে করোনা ভাইরাস। মাত্র এক হাজার নাগরিকের দেশটিতে সবার ওপর নজরদারি শুরু হয়েচে বলে জানিয়েছে ভ্যাটিকান কর্তৃপক্ষ।

ইতালিতে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। প্রায় ২০০ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ। তারা বলছে, দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৬৩৬ জন।

ইরানে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৪ জনে। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৫ হাজার।

সৌদি সরকার ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে মক্কা ও মদীনায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। জীবাণুমুক্ত করার পর শুক্রবার থেকে মসজিদগুলো আবার খুলে দেয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২৪৮ জন। সেখানে মারা গেছে ১২ জন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ৮৩০ কোটি ডলারের তহবিল গঠন করেছেন।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের দুই কর্মীর মধ্যে করোনার সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। এছাড়া শুক্রবার লন্ডনে এক কর্মীর শরীরে করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ায় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ফেসবুক কার্যালয়।

অস্ট্রেলিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৬ জন। সেখানে মারা গেছে দুই জন। দেশটির এক গবেষণা সংস্থা দাবি করেছে, এই ভাইরাসে সারা পৃথিবীতে দেড় কোটি মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

এদিকে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে সার্বিয়া ও কামেরুনেও।