শুনানি কিছুক্ষণের মধ্যেই

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন প্রসঙ্গে

0
522

উন্নত চিকিৎসার জন্য জামিন চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদনের শুনানী হবে আর কিছুক্ষণের মধ্যে।  হাইকোর্টে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কেএম জহিরুল হকের দ্বৈত বেঞ্চে এই শুনানী হবে। খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানিকে কেন্দ্র করে হাইকোর্ট এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

জিয়া চ্যারিটিবল ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীণ।

তার উন্নত চিকিৎসার জন্য জামিন চেয়ে গত মঙ্গলবার আবেদন করা হয়। খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বুধবারে আবেদনটি আদালতে উপস্থাপন করেন।

বুধবার আবেদন উপস্থাপনের পর বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারক ওবায়দুল হাসান বলেছিলেন, আমরাতো এই আবেদনটি খারিজ করেছিলাম। আপিল বিভাগও সেটি (আমাদের সিদ্ধান্ত) বহাল রেখেছেন। জবাবে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, জামিন চাইতে বারবার আসতে তো বাধা নেই। তিনি বলেন, অসুস্থতা ও বয়স বিবেচনায় মানবিক কারণে খালেদা জিয়ার জামিন চাওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে তার উন্নত চিকিৎসা হচ্ছে না। জামিন পেলে তিনি উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান।

এরপর আদালত রোববার জামিন আদালতের দিন ধার্য্য করেন।

দুর্নীতির দুই মামলায় বেগম খালেদা জিয়া মোট ১৭ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন। কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।